HI, I’M Lutfor Rahman

We are the best SEO Service Provider

About Me

SEO Expert in Dhaka, Bangladesh

Lutfor Rahman,SEO expert, Digital Marketing & Affiliate marketing Traniner in Well Recoznized Traning Institute in Dhaka. Long Story Short- This Bangla SEO Blog website is nither a portfolio or a blog for all. Insted here, I will share tips and tricks of SEO & Digital Marketing for SEOs in Bangladesh. Read More About ME

A Team Player

Besides, that if you are looking trasted SEO Services - I have build a Strong team for deal With any Keywords. I am offfering link building services - Besic/ Foundation Links, Guest Post Outreach Services. Beside, You can choose us for Articles and Blog Post Writing Service in Both English & Bangla.

Lutfor Rahman SEO Expert

Services

White Hat SEO Services In Bangladesh

Keyword Research

Link Building

Content Writing

As an SEO Specialist, I acknowledge properly how a site rank on the first page of Google. It is the time to vie with googles latest algorithms.
This year 2019, positioning on the 1st page is truly harder for the webmaster. However, white hat SEO link building and proper on-page optimization can boost your ranking. And we are here to accompany you to the top.
Wondering how we may help you?
Contact Us for more Clearification. Don't hesitate because we believe in 100% client satisfaction.

Blog

Learn SEO with Lutfor Rahman
 নতুন Google Snippet Controls মার্কআপ কি? ও কিভাবে ব্যাবহার করবেন

আসুন জেনে নেই নতুন Google Snippet Controls মার্কআপ কি? ও কিভাবে ব্যাবহার করবেন 

Google Snippet AKA Rank 0


অক্টোবর 24, 2019  নতুন Google Snippet Controls মার্কআপ চালু করছে।

গত মে মাসে, গুগল রেঙ্কিং ফেয়ারে গুগোল এর সম্পর্কে আগাম বার্তা দিয়ে রেখেছিল। আগামী 24 অক্টোবর 2019,  গুগলের নতুন  স্নিপিট আপডেট গ্লোবালি কাজ সুরু করবে।

মূলত,এই মার্কাপ সমুহ, ওয়েবমাস্টারদের সার্চ Snippit এর প্রদর্শিত ডাটা কন্ট্রল করতে দিবে। 

নতুন Google Snippet Controls মার্কআপ সমুহের বিস্তারিত  

নতুন কন্ট্রোল গুলো-

"nosnippet"

ব্যবহারঃ

এটা ওয়েবমাস্টারদের, কোন বিশেষ পেজে snippet নেওয়া বন্ধ রাখার সুযোগ দিবে।

মানে, আপনি যদি কোন পেজ থেকে snippet না পেতে চান, তাহলে ঐ পেজের </head> এর ঠিক উপরে এটা ব্যাবহার করবেন।

এখানে, কথা হল, wordpress/ব্লগার এর মত সাইটে specific পেজে মেটাট্যাগ কাস্টম ভাবে এড করা ঝামেলা।

তো, এক্ষেত্রে,

আপনি, যা করতে পারেন,


  • অপেক্ষা - যতদিন প্রজন্ত আপানার প্রিয় এসইও প্লাগিনটি এই অপশন না দেয়। আমার ধারনা, এটা খুব বেশি দিন সময় নিবে না, কারন, আলরেডি বেশ কিছু মেটা ট্যাগ এড করার সুবিধা এসব পেজে আছে। জেমনঃ noindex, nofollow, index ...


উদাহরণঃ
<meta name="robots" content="nosnippet">

"max-snippet:[number]"

ব্যবহারঃ

প্রদর্শিত  কনটেন্ট লেংথ (content length) নিয়ন্ত্রন এর সুবিধা দিবে। 

উদাহরণঃ
<meta name="robots" content="max-snippet:50">

এখানে লক্ষণীয়, 

  1. আপনি যদি max-snippet:0 ব্যাবহার করেন তা হলে তা nosnippet ট্যাগ এর মত কাজ করবে। 
  2. আবার, কোন লেন্থ লিমিট না দিতে চাইলে max-snippet:-1 ব্যাবহার করতে পারেন। 

"Max-video-preview:[number]"

ব্যবহারঃ

চলমান ভিডিও duration (সেকেন্ডে) নিয়ন্ত্রণের সুবিধা দিবে । তবে, এটা করা যুক্তি যুক্ত কিনা ভবে দেখতে হবে।


উদাহরণঃ

 "Max-video-preview:20"

এক্ষেত্রে লক্ষণীয়ঃ 
  • আপনি চাইলে ভিডিওর বদলে স্থির ইমেজ রাখতে পারবেন, সে ক্ষেত্রে  ম্যাক্স প্রিভিউ ০ তে সেট করতে হবে। এভাবে "Max-video-preview:0" ব্যাবহার করুন। 
  • আর লেন্থ নিদৃষ্ট না করতে চাইলে "Max-video-preview:-1" ব্যাবহার করতে হবে। 

"Max-image-preview:[setting]"

ব্যবহারঃ

Snippet এ প্রদর্শিত ইমেজ এর সাইজ নিয়ন্ত্রন করার সুবিধা দিবে।  আপনি চাইলে ইমেজ প্রদর্শন করা থেকে বিরত করতে পারবেন। এক্ষেত্রে মডিফায়ার গুলো হল  "none", "standard", or "large".

তবে AMP ব্যাবহার করলে আপনি দুইটি মডিফায়ার ব্যাবহার করতে পারবেন - "none", এবং "standard”. 

উদাহরণঃ

 <meta name="robots" content ="max-image-preview:standred">


নতুন “data-nosnippetd” HTML attribute


এটি বেশ মজার, এটি ওয়েবমাস্টার তথা আপনাকে কন্টেট, ও html ইলিমেন্ট এ সার্চ Snippet Control করতে দিবে।

এটা বেশ কাজের মনে হয়েছে আমার কাছে,

আর্টিকেল থকে, উলটা পাল্টা snippet দেখালে কার না বিরক্ত লাগে...
... আপনি যদি চান এখন, বিশেষ কোন অংশ ব্লক করে রাখতে পারেন।

কিভাবে?

আপনি, কোন div অথবা section এ data-nosnippet ট্যাগ ব্যাবহার করতে পারবেন। তবে মজার বাপার span ট্যাগে ও ব্যাবহার করা যাবে এই আট্রিবিউট। অর্থাৎ যে কোন html tag এর বিশেষ অংশে data-nosnippet ব্যাবহার করতে পারেন। 

ঊধাহরনঃ

<p><span data-nosnippet>আমি লুতফর রহমান</span> আপনাকে স্বাগত জানাচ্ছি এই ব্লগে, আর ধন্যবাদ জানাচ্ছি শেয়ার করার জন্য <p>


ব্যাখ্যাঃ 

উপরের example এ “আমি লুতফর রহমান” এই লেখা টুকু সার্চ স্নিপিট এ প্রদর্শিত হবে না।


শেষকথাঃ

আসাকরি, ভুল বানান, ও বাংলিশ ভাষা আপনাদের বোধগম্য হয়েছে। ভাল লাগলে, কমেন্ট করে জানাবেন। আর কোন প্রশ্ন থাকলে করতে পারেন, উত্তর দিতে চেষ্টা করব।
গুগল অ্যালগরিদম আপডেটঃ সেপ্টেম্বর 24 2019 অ্যালগরিদম আপডেট সম্বন্ধে আপনার যা জানা দরকার
সেপ্টেম্বর 24 2019 গুগল তার সার্চ অ্যালগোরিদমে কোর আপডেট চালিয়েছে। গুগলের অফিস থেকে টুইটারে বার্তার মাধ্যমে এটা নিশ্চিত করা হয়েছে আর আমরা যারা ওয়েবমাস্টার তারা এটা বুঝতে পারছি। মূলত এই আপডেটটি এসেছে গ্লোবালি, কোন বিশেষ নিস এর উপরে নয়।

এই পোস্টে আমরা জানবো, এই আপডেটে কোন বিষয়ে ফোকাস করা হয়েছে, কি ধরনের সাইট রাঙ্ক হারনো বা ভিজিটর হারানোর ঝুঁকিতে আছে।


এবছর এ পর্যন্ত গুগল সর্বমোট আপডেট চালিয়েছে তিনটি আসুন জেনে নেই সেপ্টেম্বর 24 2019  ঘটা গুগলের কোর আপডেটে কি নিয়ে? 

সেপ্টেম্বর 24, 2019 গুগল অ্যালগরিদম আপডেটঃ

আগে থেকেই এটা অনেকেরই জানা ছিল যে সেপ্টেম্বর 24 শে গুগোল সার্চ রেজাল্ট এর কোর আপডেট আনতে যাচ্ছে। কেননা গুগল এসইও এবং ওয়েবসাইটের মালিকদের আগেভাগেই জানিয়ে রেখেছিল।
এই আপডেটটি pre-announced ছিল মানে গুগল আগেভাগেই আপডেট সম্পর্কে জানিয়ে রেখেছিল।



টুইট লিঙ্কঃ ডানি সুলিভান

মূলত দুইটা যা বলা হয়েছে তা হল গুগল তারপর আপডেট রান করছে এবং এটা সম্পন্ন হতে কয়েকদিন সময় লাগবে।

আজ যখন আমি এটা লিখছি, তখনো আপডেট চলছে তাই এই মুহূর্তে সঠিকভাবে বলা যাচ্ছে না এই আপডেট এ কি কি বিষয় ফোকাস করেছে। যখন আপডেট সম্পূর্ণ শেষ হবে বা আমরা বুঝতে পারব গুগোল সার্চ রেজাল্টে কি কি চেঞ্জ এনেছে।

গত আগস্ট 2019 ওয়েবমাস্টার ব্লগে আপডেট সংক্রান্ত একটি পোষ্ট পাবলিশ করা হয়েছে । তা থেকে আমরা ধারণা করতে পারি এই আপডেটে কি থাকছে।

সেপ্টেম্বর মাসের গুগোল কোর আপডেট কি নিয়ে

আমি আগে বলে নিচ্ছি এখনও বলা যাচ্ছে না সঠিকভাবে কোন বিষয়ে আপডেটটি চলছে. তবে এসিও এক্সপার্টরা ও ওয়েবমাস্টার ব্লগ থেকে প্রাপ্ত তথ্য নিয়ে যা ধারণা পেয়েছি,সেটা নিয়ে আমি আলোচনা করলাম।
এছাড়াও আমরা জানি কিছুদিন আগে এডসেন্স পলিসির আপডেট হয়েছে। অনেক সাইটে এড লিমিট করেছে। সেসব থেকেও আমরা ধারণা করতে পারি আপডেটের বিষয়গুলো।


"এই কোর আপডেট কন্টেন্ট নিয়ে"। অ্যালগরিদম চেঞ্জ সম্পর্কে করা ব্লগপোষ্টটিতে মূলত এ বিষয়টি নিয়ে বলা হয়েছে। সেখানে আভাস দেয়া হয়েছে, কোর আপডেটের বিষয় নিয়ে। তাছাড়া, বিগত কিছুদিন ধরে, অ্যাডসেন্সেও কন্টেন্ট রিলেটেড কারণে পেনাল্টি দিচ্ছে।

আসুন, একটু বিস্তারিত জানি,

যারা সার্চ কোয়ালিটি গাইডলাইন ফলো করছেন না তারা এই আপডেটের সমস্যার মধ্যে পড়তে পারেন।

কনটেন্ট এর কোন কোন বিষয়ে আপনার সাইট এ আপডেটে পেনাল্টি খেতে পারে?

যদিও এই পোস্টে গুগল কোন ক্লিয়ার কাট গাইডলাইন দেয়নি। তবে প্রশ্ন যে প্রশ্নগুলো করা হয়েছে তা থেকে আমরা সহজেই ধারণা পেয়ে যেতে পারি।

আসুন, জেনে নেই কি ধরনের সাইট এই আপডেটে ঝুঁকির মাঝে আছেঃ
  1. কপি পেস্ট করা কনটেন্টগুলো - মূলত অন্য কারো থেকে আংশিক বা সম্পূর্ণ কপি করে নেওয়া সাইটগুলি,
  2. কম্পিটিটরদের থেকে খারাপ মানের কনটেন্ট সমৃদ্ধ সাইটগুল, 
  3. ওয়েবসাইট স্টাইলিং এবং মোবাইল ভিউ খারাপ হলে, 
  4. পাংচুয়েশন ও গ্রামাটিকালি এরর সমৃদ্ধ কনটেন্ট, 
  5. ভালো রিসার্চ বিহীন কনটেন্ট হালকার উপর ঝাপসা লেখা, 
  6. টাইটেলের সাথে পোস্ট বডির লেখার মিল না থাকা, 
  7. খারাপ মানের লেখা, বিশ্বাসযোগ্য কন্টেন্ট না হলে,  
 Is the content trustworthy? 

তো, গুগল কিভাবে বুঝবেন কোন কনটেন্ট ভালো কোনটা খারাপ?

আমরা জানি গুগল আপনার সাইটে ভিজিট করার গুলির এক্সপেরিয়েন্স ট্রাক করে।

মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্য প্রদানকারী সাইট গুলো, বানোয়াট তথ্য বা মিথ্যা তথ্য সবসময় ভয়ঙ্কর। মূলত গুগল অনেকদিন থেকেই এইসব মিথ্যা বানোয়াট তথ্য সমৃদ্ধ ওয়েবসাইট কে পেনাল্টি দিয়ে আসছে এবং গুগোল এর অ্যাগরিদম আপডেট করতে চেষ্টা করছে যাতে এসব তথ্য গুগল উপলব্ধ না হয়।

গুগল কিভাবে তথ্য ভাল বা খারাপ বুঝে?

কোন সাইটের ভিজিটরদের ব্যাবহার থেকে। যেমনঃ
  • তারা কি করছে?
  • আপনার সাইটে কতক্ষণ সময় ব্যয় করছে? 
  • শেয়ার করছে কিনা কিংবা কমেন্ট করছে কিনা? 
  • আপনার দেওয়া তথ্যগুলোর কোন এভিডেন্স কিংবা তথ্যগুলো সত্য তার প্রমান আছে কিনা।
  • আপনি যে তথ্যগুলো দিয়েছেন সে তথ্য গুলো অন্য কোন তথ্যের সাথে মিল আছে কিনা। 

শেষকথাঃ

আজ এ পর্যন্তই, পরবর্তীতে এ বিষয়ে বিস্তারিত লেখা হতে পারে আপনি যদি এই আপডেটে কোনরকম সমস্যার সম্মুখীন হন তাহলে আমাকে নক করতে পারেন।
কিভাবে আপনার করা ১০০% বেসিক ব্যাকলিংক ইনডেক্স করাবেন?
ব্যাকলিংক(backlink)  SEO এর সবচেয়ে গুরুত্ববাহী কাজ গুলির একটা। ভাল, ডু ফলো ব্যাকলিংক পাওয়া ভাগ্যের ব্যাপার। আমার কথাই ধরুন, আগে যেখানে, দিনে ৫০+ বেসিক ব্যাকলিংক করা যেত এখন সেখানে ২০+ খুশি হই। তথাপি, আমারা যারা প্রতিনিয়ত ব্যাকলিংক করি, গুগল সেগুলি ইনডেক্স করে না। বড্ড খারাপ লাগে যখন, অনেক কষ্টে পাওয়া ব্যাকলিংক ইনডেক্স হয় না।

এখন কথা হলঃ ব্যাকলিংক ইনডেক্স(নথিভুক্ত) করাব কিভাবে?? 

তার আগে একটু ক্ষমা চেয়ে নেয়া যাক, 
আমি দুঃখিত আপনাকে একটা ক্লিকবেট টাইটেল দিয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করার জন্য। সাধারণত, বেসিক ব্যাকলিংক ১০০ ভাগ ইনডেক্স সম্ভব না। ৯০% সম্ভব। তবে, আমার বিশ্বাস সব ঠিক থাকলে ১০০% ও ইনডেক্স হতে পারে।
প্রমিসঃ 

কোন আজব ম্যাজিক দেখাব না। কিছু রুলসের কথা বলব। যেটা আমি ব্যবহার করি, আমার জানাশোনা দেশের বাইরের(যদিও কেউ আমকে চেনে না) ও বাংলাদেশী SEO expert'স ফলো করে ব্যাকলিংক গুগলে ইনডেক্স করানোর জন্য। এই আর্টিকেলে সেসব বিষয়গুলো বলব, যেটা আপনার করা বেসিক ব্যাকলিংক ইনডেক্স করতে অবশ্যই সাহায্য করবে।

আসুন,

কিভাবে আপনার ১০০% বেসিক ব্যাকলিংক ইনডেক্স করাবেন? 

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ গুলি উপর থেকে নিচে সাজিয়ে লেখার চেষ্টা করেছি। আশাকরি, শেষ অবধি থাকবেন। শেষে থাকবে, কেন আপনার লিঙ্ক ইনডেক্স হচ্ছে না।

মনে রাখবেন, ব্যাকলিংকের সংখ্যা আপনার উদ্দেশ্য (কিওয়ার্ড রাঙ্ক করা) পূরণ করবে না। বরং, একটি ভাল লিংক আপনাকে লং-টার্ম সাহায্য করবে।

ইউনিক লেখার চেষ্টা করুন

অনুগ্রহ করে, দয়া করে, একি কমেন্ট বার বার করবেন না। মানে একবারের বেশি করবেন না। thanks, tnx, good article typer কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।
অবশ্যই নজর রাখুন আপনার অ্যাংকর এর আশে-পাশের কন্টেন্ট যেন ইউনিক হয়।

ইউনিক কমেন্ট করার সুবিধাঃ 

  • লং টার্ম এসওতে খারাপ প্রভাব ফেলবে না। 
  • একই কমেন্ট বারবার করা স্পামারের কাজ, তাই আপনাকে স্পামার ট্যাগ দিবে না গুগল।
  • LSI অ্যাংকর গুলি কমেন্টের সাথে ব্লেন্ড করে যাবে। 
  • রেফারেল ট্রাফিক পাবেন বোনাস হিসেবে।

    ইউনিক কমেন্ট করার অসুবিধাঃ 
    • প্রতিবার কষ্ট করে আর্টিকেল পড়তে হবে।

    ইউনিক কমেন্ট লেখার টিপসঃ 


    আসলেই প্রতিবার নতুন কিছু লেখা বেশ ঝামেলার। সেক্ষেত্রে আপনি একটু আধটু কৌশলী হতে পারেন। যেমনঃ

    • প্রতিটি কমেন্টে, আর্টিকেল পাবলিশারকে সম্বোধন করতে পারেন। 
    • আর্টিকেলের মুল বিষয় কোন প্রশ্ন থাকলে, বা আপনার মন্তব্য দিতে পারেন।
    • অন্যের করা কমেন্টের উত্তর দিতে পারেন।
    • টাইটেল, ইমেজ, নিয়ে কিছু বলেতে পারেন। 

    সাইট মেট্রিক্স দেখে লিংক করুনঃ 

    DA, PA এর দিন ভুলে যান, ভিজিটর আছে এমন সাইট বাছুন লিংক করার জন্য। এটা কার্যকরী, যে সাইটে ভিজিটর নাই, ঐ সাইটে লিংক করা অরণ্যে রোদন। ময়মনসিং এর ভাষায়, "করছুইন তো মরছুইন।" 


    তো ভাই,

    ভিজিটর দেখতে হবে প্রতিটা পেজের? এটা কি সম্ভব? - সম্ভব, লিংক করার জন্য এটাকে প্রথম শর্ত করেনিন।  আর ব্যাপারটা এতটা কঠিন না। আসছি এ বিষয়ে একটু পরে।

    দ্বিতীয়ত, সাইটটির কোন পেনাল্টি আছে কিনা দেখে নিন। পেনাল্টি যুক্ত সাইটে লিংক করবেন না। পরিণাম শূন্য।

    অতিরিক্ত, স্প্যাম স্কোর যুক্ত সাইটে লিংক করা থেকে বিরত থাকুন।

    আসুন যেনে নেই কিভাবে খুব সহজে, সাইট মেট্রিক্স দেখবেন।

    কোন সাইটের মেট্রিক্স কিভাবে দেখবেন? 

    আমি, আমার কথা বলি, আমি দুটি আড-অন্স ব্যবহার করি। প্রথমটি, Vstat, দ্বিতীয়টি Mozbar (নামের উপরে ক্লিক করে আপনার গুগল ক্রম ব্রাউসারে অ্যাড করে নিতে পারেন।) বেসিক ব্যাকলিংক করার জন্য এই দুটি টুলস যথেষ্ট।




    এখন, মেট্রিক্স দেখার টুলস তো পেলেন, কিভাবে কি?

    • DA, PA নিয়ে স্পেশাল চাহিদা থাকলে, মোজবার দেখুন। 
    • স্প্যাম স্কোরও মজবার এ পাবেন। বেশি স্প্যাম স্কোর মানে, সাইটের ব্যাকলিংক প্রোফাইল ভাল না। 
    • ভিস্টাট থেকে ট্রাফিকের আইডিয়া পাবেন, মনে রাখবেন, কম ভিজিটর ও নতুন সাইট গুলিতে ভিস্টাট ভুল ডাটা দিতে পারে।
    • ভিজিটর গ্রাফ দেখুন, যদি হটাৎ করে ভিজিটর খুব বেশি (৩০%+) কমে যায়, ওই সাইট বর্জন করুন। 
    • আবার অনেক দিন ধরে (৪-৫ মাস) ভিজিটর কমতে থাকলে, আর একটু গবেষণা করুন সাইটটি নিয়ে, অথবা আমার মত আলস এসইও এক্সপার্ট হলে লিংক করারই দরকার নাই। 
    বিঃদ্রঃ Vstat বিগত ৬ মাসের ট্রাফিক দেখায়, কোন ওয়েবসাইট নিয়ে সংশয় ahrefs এ দেখে নিতে পারেন।  

    নিস রিলেভেন্ট সাইটে ব্যাকলিংক করুনঃ

    স্পেসফিক নিসে করতে পারলে ১০০ তে ১০০। আর অন্য় সময় গুলিতে, মাদার নিস বাছুন, কমপক্ষে নিস রিলেভেন্ট পোস্ট বাছুন। যেমনঃ যদি আপনার নিস হয় "Car Cover"

    প্রথমে, Car Cover রিলেটেড সাইট খুঁজুন বেসিক ব্যাকলিংক করার জন্য
    তারপরে car equipment রেলেটেড, পয়েন্টিং,রিপেয়ার।
    -> car রিলেটেড।
    -> vhechels রিলেটেড, যেমনঃ bus, truck, driver ইত্যাদি।
    তারপরে সামান্য অন্য কিছু লিংক করলেও করতে পারেন। 

    বেসিক ব্যাকলিংক করার জন্য নিস রিলেভেন্ট সাইট কিভাবে খুঁজবেনঃ 

    এক্ষেত্রে এডভান্স সার্চ টার্ম ব্যবহার করা হয়। যেমনঃ 

    Keyword + site:wordpress.com
    Keyword + site:blogspot.com
    Keyword + site:typepad.com
    Keyword + site:edublogs.org
    Keyword + site:livejournal.com
    Keyword + intext:”powered by wordpress”
    Keyword + intext:”powered by typepad”  

    সোশাল শেয়ার করাঃ

    যদিও সব ধরেনের লিংক আমি সোশাল শেয়ার করি না। তবে প্রশ্ন উত্তর (like: quora.com - the nofollow mother house :) ) ওয়েবসাইট গুলিতে লিংক করেল সোশাল সিগনাল আনতে চেষ্টা করি। 
    • এক্ষেত্রে টুইটার, রেডিট, লিংকডইন (লিঙ্কদিন / লিঙ্কেডিন নামে ও পরিচিত :P) ভাল। 

    পিং করা

    পিং করা ভাল না, আজে বাজে রেফারেল লিংক তৈরি করে। তবে, এটা ইনডেক্স করতে সাহায্য করে। ব্যাকলিংক ইনডেক্স করাতে সর্বচ্চ একবার পিং করতে পারেন। তাও, মাঝে মাঝে।

    পিং করলে ব্যাকলিংক ইনডেক্স হবে ঠিকি, ক্ষতি ও হতে পারে। যে সব সাইট গুলি পিং করে সার্চ ইঞ্জিনে, সেগুলি ব্যবহার করতে পারেন।  Linklicious মত সাইট ভুলেও ব্যবহার করবেন না।
    একের অধিকবার পিং(ping) করবেন নাহ।  

    মূলতও, আমি ওয়েব ২.০ ইনডেক্স করানোর জন্য পিং করে থকি, তবে বাজেট ভাল হলে টিয়ার ২ ব্যাকলিংক করি। 

    পিং সম্পর্কে জানতে, পিং এর বিস্তারিত , করা না করা আপনার ব্যাপার। 

    এখন, 

    যে সব কারনে Backlink নথিভুক্ত (index) হয় না

    মূলত, ইনডেক্স না হবার জন্য হোস্ট সাইট আর বাজে বা স্প্যাম কমেন্টদায়ী।
    • হোস্ট পোস্ট অনেক পুরনো হলে, 
    • সাইট পেনাল্টি তে থাকলে,
    • ওয়েবপেজ নো-ইনডেক্স (no index) করা থাকলে, 
    • ভিসিটর না থাকলে,
    • ডুপ্লিকেট কমেন্ট হলে,
    আপনার যেসব ভুল পরিহার করতে হবে, বা যা যা করলে আপনি স্পামার হবেন? 

    কিভাবে আপনার লিংকগুলো স্প্যাম হবার হাত থেক বাঁচাবেন? ( How to Not Become a Link Spammer? )

    আনন্ত জলিল ভাইয়ের মত ইংরেজি দেখে কষ্ট পাবেন না। আপনাকে জানতেই হবে কিভাবে স্পামার ট্যাগ থেকে বাঁচবেন। 
    • শুধুমাত্র লিংক পাবার আশায় কমেন্ট করবেন না, কমিউঁনিটিকে কিছু দিতে চেষ্টা করেন। 
    • ফোরামে যোগ দিয়ে লিংক দিয়ে পালিয়ে যাবেন না, মাঝে মাঝে আসবেন। 
    • প্রোফাইল ব্যাকলিংক ১০০% করুন। 
    • একি কন্টেট বার বার দিবেন না।ব্লা ব্লা......
    • একি অ্যাংকর ট্যাগ সব যায়গায় ব্যবহার পরিহার করুন। 
    • নেকেড (যেমনঃ https://lut4raman.blogspot.com/) সরাসরি ব্যবহার করুন।
    • ভাল সাইটে লিংক করুন, বাজে স্প্যামি, দর্শক ছাড়া সাইটে লিংক করবেন না। 
    •  একদিনে, অনেক লিংক করা থেকে বিরত থাকুন। 

    শেষ কথাঃ 

    বেসিক ব্যাকলিংকে হালকা ভাবে নেবার কোন সুযোগ নাই। কষ্ট না করলে ভাল ফল আশা করা যায় না। আর, 
    প্রোফাইল বা ফোরাম ব্যাকলিংক ইনডেক্স না হলে আমাকে দোষ দিবেন না।
    হয়তো, স্প্যামের কারণে অনেক আগেই ওগুলি গুগলে ব্ল্যাকলিস্টেড। এক্ষেত্রে, এস্রেফ থকে কম্পিটেটরদের ব্যাকলিংক লিস্ট নামিয়ে, ওদের পথে হাঁটুন।

    পরিশেষে, কিছু বলতে মনে চাইলে বলে যাবেন, ১ মিনিট লাগে না কমেন্ট করতে। ধন্যবাদ, আবার আসবেন। 
    no image

    ইমেইল মার্কেটিং, সেল বা বিক্রয় বৃদ্বিতে গুরুত্বপূর্ণ অংশ। এটি গ্রাহকদের ইমেল পাঠানোর একটি অত্যন্ত কার্যকর ডিজিটাল মার্কেটিং কৌশল। 

    ইমেইল মার্কেটিং কি | What is Email Marketing?

    ইমেইল মার্কেটিং (email marketing) হলো ইমেইল প্লাটফর্ম ব্যবহার করে লিড জেনারেশন (lead generation) প্রক্রিয়া। সাধারণত, এর মাধ্যমে কোনো মেসেজ (message) সম্ভাব্য ক্রেতা বা ভিজিটর এর ইমেইলে পাঠানো হয়। 


    থামুন,

    কাকে ইমেইল করবেন? আর কেনই বা করবেন? অর্থাৎ, আপনার ডিজিটাল সার্ভিস, ইকমার্স বা ব্লগের জন্য কাদের মেইল করবেন। শুধু শুধু ইমেইল পাঠিয়ে তো আর লাভ হয় না। টার্গেটেড মানুষের কাছে বার্তা পৌঁছালেই না, সেল হবার একটা সুযোগ থাকে। 

    টার্গেটেড ইমেল কিভাবে পাব?

    ধুর, আপনি ভাবলেন কিভাবে এত সহজে আমি সব বলে দিব। একটু অপেক্ষা করতে হবে। পরে একটি সম্পূর্ণ গাইড লিখব (লিংকডিন সেলস ন্যাভিগেটর সহ) এটা নিয়ে। যদি আপনারা চান। তবে কমেন্ট করে জানাতে হবে। 

    সাধারণত, সোশাল মাধ্যম যেমন লিংকডিন, নিস রিলেভেন্ট ফোরাম, ব্লগ থকে ইমেল পাওয়া যায়। তবে, আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইট এর সাবস্ক্রবার থকে সবচেয়ে ভাল ফল আশা করতে পারেন। 

    এই পোস্টে আমারা ইমেল মার্কেটিং এর সাধারণ ধারনার মাঝে সীমাবদ্ধ থাকবো। 

    বর্তমান সময়ে  ইমেল মার্কেটিং এর অবস্থাঃ

    এখনকার দিনে, বাংলার মানুষ ইমেল মার্কেটিং কে সিপিয়ে মার্কেটিং এর আডাল্ট লিংক সেন্ড বুঝে। 

    তবেঁ, এটা একটা মজা ছিল,  

    আপনকে জানতে হবে কিভাবে, ইমেল দিয়ে অন্য মাধ্যমের ক্লাইন্ট পাওয়া সম্ভব।  ছোট ও মাঝারি বাব্যসায় ইমেল মার্কেটিং খুব গুরুত্বপূর্ণ। সাধারানত, আপনি সার্ভিস বা পণ্য বিক্রি করতে চাইলে লং- টার্ম প্লান করতে হবে। 

    ডিজিটাল মার্কেটিং এর প্রাণ কন্টেন্ট মার্কেটিং এর সাথে সম্পর্কযুক্ত। কারণ নিজের মেইল এর ইনবক্স দেখুন, ব্রান্ড কেউ না চিনলে / প্রয়োজন না থাকলে / হেডিং পছন্দ না হলে, কয়টি ইমেল আপনি পরেছেন? 

    প্রশ্নটা আমাকে করলে- উত্তরটা হবে শূন্যের কোঠায়, হয়ত .০০১ এর মত হতে পারে। আপনার ক্ষেত্রে ও তাই।  

     তো, 

    ভাল ফলাফল পেতে, ইমেল পাঠানোর পূর্বেই আপনাকে জানতে হবে, 

    ইমেইল মার্কেটিং বেসিকঃ  

    • কিভাবে ইন্ডাস্ট্রি টার্গেটে করে ইমেল কালেক্ট করতে হয়?
    • লিড মেগনেট কি? কি কাজে ব্যবহার করতে হয়?
    • ইমেইল পাঠানোর আইন কানুন, কেনো, ইমেল স্প্যাম হয়। 
    • ইমেইল ডিজাইন, 
    • সিগমেন্ট কি? কেন করা হয়?
    • রি-টার্গেট, 
    • ইমেল সেন্ডিং সফটওয়্যার দিয়ে কিভাবে বাল্ক ইমেইল পাঠতে হয়? (অটোমসোন বা অটোরিস্পন্ডার)
    • আপ সেল কি? কিভাবে করা হয়? সহ আরও অনেক কিছু। 

    Ranking Factor 2019: Rankings Signals That'll Define #1 Position in Google
    The ranking signal that Google truly count. This article will guide you to rank keywords on the top of SERP in 2019 and beyond. Let's take a look.
    Ranking Factor 2019
    Photo Credit: SEMRush


    Hi SEO, have you noticed that there was a massive change in SERP result the year 2018. There is a couple of new SERP features are now permanent on 80% of the search result.

    At this moment, I can't tell either this google feature snippits are the blessing or curse. 
    But, If you consider it sincerely, this can be both - blessing at the same time a curse. As one result is getting more impressions and click on the other hand now a page ranked number 50 on a keyword SERP can rank on first pages Q/A section.

    I will write an article near future about the latest changes and the metrics to accomplish them.

    Now,

    This article I will try to clarify the rankings signals that'll define #1 position in search engine rank page (SERP).


    Google Ranking Factor 2019

    Basically, there will be continuity on the ranking signals from 2018. But there will be no massive change in 2019 unless a new algorithm is introduced.

    It does not mean that the ranking factor will be the same. You know that Google is trying to improve machine learning of there core algorithm (Rank Brain).

    The primary goal of RankBrain Update is understanding the searchers intend and determine the most suitable results for each search engine queries.

    So, what will be the biggest ranking factor in 2019? I don't find any reliable answer in any SEO blog. 

    To understand and identify those ranking signal let's analyze google core algorithm changes, twinks and what we have experienced in last year.

    Google Core Algorithm Changes and its effect on SERP result in 2018-till now:

    In the previous year, there are some major Google algorithm updates. And there seemed a continuity on SERP features on most of the keyword(Search Phereses). Also, google removed sidebar ad from search result page. 

    Most of the new features were meant for mobile agents and focused on structured data and machine learning. 

    let's take a look at this list of important updates below:

    1. SERP Feature Change
      • Limit ads on Sidebar, Introduce New Ad Types in Google Shopping.
      • More visual then Text
      • Featured Q/A section contains more relevant questions. 
    2. Google Algorithm Change
      • There been some Mild Quality Updates (at least 5-6 times in 2018)
      • On July 9, 2018, update it stricks on slow pages. Maybe google panda also sticks on low-quality Websites. 
      • New E-A-T and YMYL (Your Money, Your Life) Update, the main focus on the update was to secure searcher from bad and low-quality YPML niche sites. 
      • There is a new update called Medic Update, From October, 18 - November, 18 it sticks several times.
      • On January, 19 there is a mild quality update on the Googles algorithm. 

    Those were the important ones, but they are my own preferences. But, I hope by now you have understood the changes. 

    So, there is one more step, before we identify the Ranking Signals for this year. That is- what was the biggest ranking factor that Google announced previous years.

    1. HTTPS is now a ranking signal, read from webmaster blog HTTPS as a ranking signal on August 6,2014.  
    2. Google does not use the keywords meta tag in web ranking on Sep 21, 2009.
    3. Using page speed in mobile search ranking on Jan 1, 2018, But previously on April 6, 2010, they announced this as a ranking factor.
    4. Official Google Webmaster Central Blog: Rolling out mobile-first indexing on March 26, 2018
    5. Google Deconstructing The Google EMD Update, Means EMD is no longer a ranking factor. But keyword in URL is always a help. Branding your Business will be a better idea. read: Google: EMD Update 
    Now, this is not the last thing you'll need to know for now. 

    Besides, there is some core google algorithm, like the panda, penguin, and passion, hummingbirds are still working along with Rank Brain. In fact, the rank brain is a partial core of Humminbird. 

    But, I do not waste your time anymore, But you have to learn about those algorithms. 

      

    List of Rankings Signals That'll Define #1 Position in Google SERP, 2019:

      List of Rankings Signals That'll Define #1 Position in Google SERP, 2019:
    1. High-Quality Content- That is well researched, unique and user-friendly. Google is tired of ranking same information over and over, try to implement some new ideas and experiences. Always focus on the on-page optimization first.
    2. More Internal Linking: Link 2-3 relevant article inside your own blog.
    3. Building Link Profile- Quality, Niche Relevant, High Authority Links.
    4. SSL/ HTTPS.
    5. Sites with faster load speed and Mobile Friendly website will rank better. Read:- 
    6. Brand Recognition-  This is also known as Branding, some SEO, Like Rand Fishkin ex. Founder of Moz believes that may be in recent future Brand value will be the most important on-page ranking factor.
    7. Voice Search Related Factor- From google recent search stats we can estimate that in 2020-25, Average number of search will same as textual search. So be prepared for that. The tricks here are using- more related search phrases, Long-Tail Keywords, and LSI keywords.
    You can also read: 


    Thanks, this is my thought on to ranking factor 2019. If you have something to add you can message me- below the comment section.
    ২০১৯ সালের SEO ট্রেন্ডঃ 2019 এ এসইওতে কি কি পরিবর্তন আসবে
    আসুন, জেনে নেই, গুগলের প্রথম পেজ (SERP) রাঙ্ক করতে যে সব বিষয় নজর দিতে হবে। যে কোন  ইলেক্ট্রিক প্রোডাক্টের মত SEO ও প্রতি মুহূর্তে পরিবর্তনশীল। 

    তবে আপনি যদি মনে করে থাকেন যে, এসইও পুরোটাই চেঞ্জ হয়ে গিয়েছে তাহলে ভুল ভাববেন। তবে এটা অনেক বেশি চ্যালেঞ্জিং হয়েছে। আগের মতো অত সহজে রাঙ্কিং করা সম্ভব হবে না।

    বিগত কিছুদিন ধরেই গুগল কনটেন্ট এর উপরে বেশি জোর দিচ্ছে। গুগলের অ্যালগরিদম র‍্যাঙ্ক ব্রেন, আর ভয়েস সার্চ এর প্রাধান্য থাকবে।

    ২০১৯ সালের SEO ট্রেন্ড


    ২০১৯ সালের SEO ট্রেন্ডঃ

    2019 সালে এসইও বেশিরভাগই একই হতে পারে, যেমন এটি 2018 বা 2017 সালে ব্যবহৃত হয়েছে। কোনও বড় পরিবর্তন আশা করবেন না।

    1. বর্তমান বছরে রাঙ্ক করতে হলেও আপনাকে, উচ্চ মানের কন্টেন্ট, অন-পেজ অপটিমাইজেশন, আর ব্যাকলিঙ্ক করতে হবে। 
    2. তবে এই সব বিষয়ে কাজ করার সময়ে আরও যত্নশীল হতে হবে। কন্টেন্ট ভাল হতে হবে।কন্টেন্ট লিখার সময়, রিলেটেড সার্চ আর গুগলের প্রথম পৃষ্ঠায় থাকা, প্রশ্নের উত্তর দিলে ভয়েস সার্চে সুবিধা পাবেন। 
    3. বর্তমান সময়ে ব্যাকলিঙ্কের পরিবর্তে Google কোন ওয়েবসাইটের গুনগত মানের দিকে জোর দিয়েছ।
    4. লিঙ্ক তৈরির সময়, রিলেভেন্ট কন্টেন্ট সমৃদ্ধ ওয়েবপেজ বেছে নেয়া হবে, বুদ্ধিমানের কাজ। কারণ, অদূর ভবিষ্যতে হয়তো বড় কোন সমস্যায় পড়তে পারেন। 
    5. লিঙ্কের পরিবর্তে গুগল এখন ব্রান্ড ভ্যালুকে বেশি মূল্যায়ন করেবে। ব্রান্ড ভালু তৈরি করার চেষ্টা করুন। 
    6. RankBrain আরও বেশি প্রভাব খাটাবে রাঙ্কিং এর ক্ষেত্রে। ভয়েজ সার্চ এর জনপ্রিয়তা বাড়ছে। আর গুগল যদি আপনার কন্টেন্টের বিষয়ে বুঝতে না পারে তা হলে?? কি হবে আন্দাজ করতে পারছেন নিচ্ছই। 
    7. Mobile search optimization আগের মতই। 
    8. User Exprience এ বেশি করে নজর দিন। 
    2019 এ এসইওতে কি কি পরিবর্তন আসবে সেটা নিয়ে আমার যা মনে হয়েছে সেগুলো নিয়ে একটা কিছু লিখার চেষ্টা ছিল। ভাল লাগলে শেয়ার করুন। 
    On-page SEO Guide- অন পেজ এসইও-র প্রধান ৪টি ধাপ - Learn SEO With Lutfor Rahman
    অন-পেজ অপ্টিমাইজেশন, একটি ওয়েব পেজ রাঙ্কইং এর জন্য 40% থেকে 50% গুরুত্ব বহন করে। On-page SEO (অন পেজএসইও) এর মূলত  এর 4 টি দিক। আজ আমরা জানবো অন পেজ অপটিমাইজেসন( optimazition) এর এই ধাপ গুলি সম্পর্কে।

    On-page SEO Guide- অন পেজ এসইও প্রধান ৪টি ধাপ

    On-page SEO Guide- অন পেজ এসইও-র প্রধান ৪টি ধাপ

    1. SEO-Friendly URLs
    2. Right Set of Keywords
    3. Responsive Design and site speed
    4. Content optimization
    যখন আমরা অন-পেজ এসইও বিষয় নিয়ে ভাবি, তখন আমি নিশ্চিত যে আপনি মেটা ট্যাগ(meta tag), কীওয়ার্ড অপটিমাইজেশন(keyword optimization), robots.txt, সাইটম্যাপ(sitemap), ইমেজ অপ্টিমাইজেশান(image optimization) সম্পর্কে খুব ভালভাবে পরিচিত।

    SEO-Friendly URLs

    সহজ করে বললে, URL টি এমন হবে যেন সেটা দেখে মানুষ বুঝতে পারে আপনার ওয়েব পেজটি কি বিষয়ের। 

    যেমনঃ https://lut4raman.blogspot.com/2018/11/best-free-website-seo-audit-tools.html

    লিঙ্ক টি দেখে ধারনা করে ফেলেছেন, এই লিঙ্কে গেলে কি পাবেন। যদিও আমার এই সাইটটির URL নিয়ে খুব বেশি মাথা ঘামাই না। তার পরেও এটা মোটামুটি ভাল লিঙ্ক।

    একটি মান সম্মত এসইও ইউআরএল স্ট্রাকচার কেমন হবে? 


    1. কীওয়ার্ড (keyword) থাকতে হবে।
    2. যতটা সম্ভব ছোট হবে। ৫১২ পিক্সেল এর মধ্যে। 
    3. নাম্বার না থাকলে ভাল।
    4. স্টপ ওয়ার্ড (যেমনঃ of, in, for, i, you, they, wh questions etc) থাকবে না।
    তা হলে আমার দেয়া লিঙ্কটি যদিঃ https://lutforraman.com/best-free-seo-audit-tools.html হত তা হলে ভাল হত। 


    Right Set of Keywords

    ভাল ও রিলেভেন্ট Keywords ব্যবহার করা বাঞ্ছনীয়। 

    মনোযোগ দিয়ে, ভাল মানের লংটেল , LSI আর রিলেটেড কি-ওয়ার্ড এর একটি সেট তৈরি করে কন্টেন্ট সাজানো উচিত। 

    Responsive Design and Site speed

    সোজা কোথায় মোবাইল অপটিমাইজ ওয়েব সাইট হতে হবে। 
    গড়ে,৫১% মানুষ তার স্মার্ট ফোন থেকে ওয়েব সার্চ দেয়। তাই এটা খুব গুরুত্ব পূর্ণ। আর গুগল রিসেন্ট আপডেট গুলিতে Responsive Design তথা মোবাইল অপটিমাইজেশনে ফ্যাক্টরগুলী খুব গুরুত্ব দিচ্ছে।

    Site Speed বাড়াতে বা load time কমাতে কি কি করা হয়?


    1. Image Size কমান
    2. ভাল মানের ওয়েব থিম ব্যবহার। 
    3. HTTP request এর সংখ্যা কমান।
    4. Pege Cache ব্যবহার।
    5. ভাল ওয়েব সার্ভার ব্যবহার করা। ইত্যাদি ।


    Content optimization

    এই ধাপটি খুব গুরুত্বপূর্ণ। একটি কিওয়ার্ড এর জন্য ১৫০-৩০০ ওয়ার্ড লেখা থাকা ভাল। আর আর্টিকেল লেখার ক্ষেত্রে কিওয়ার্ড ডেনসিটি ০.৫%-১% মধ্যে রাখা ভাল। 


    ৯৭% মানুষ মাত্রাতিরিক্তভাবে কিওয়ার্ড ব্যবহার করে ওভার-অপ্টিমাইজড করে ফেলেন।

    বিভিন্ন এসইও এক্সপার্ট বিভিন্ন সময়েই ০.৫%-১% কিওয়ার্ড ডেনসিটি মেইনটেন করতে বলেছেন।

    কিভাবে কিওয়ার্ড ডেনসিটি মেইনটেন করবেন?  

    এটা, করা খুব একটা কঠিন কাজ না। কোন কিওয়ার্ড এর জন্য লেখা আর্টিকেল এর প্রতি ১০০০ শব্দের মধ্যে ৫-১০ বার কিওয়ার্ড ব্যবহার করবেন। 

    আর, 

    একটি কিওয়ার্ড অপটিমাইজ আর্টিকেলে কি কি থাকবে? 

    1. ইউনিক, অর্থবোধক, হেল্পফুল কন্টেন্ট থাকবে। সোজা বাংলায় সহজ, সরল, অর্থবোধক সাবলীল লেখা যা একজন পাঠকের মনে জয় করতে পারবে। 
    2. কমপক্ষে ৫০০ শব্দ থাকবে। 
    3. কমপক্ষে একটি ছবি থাকবে যার alt tag এ কি-ওয়ার্ড থাকবে। 
    4. ডেনসিটি ঠিক থাকবে।
    5. লংটেল কি-ওয়ার্ড থাকবে।
    6. LSI keywords থাকবে। 
    7. সাব- টাইটেল এ কি-ওয়ার্ড/লংটেল কি-ওয়ার্ড  ব্যবহার হবে। 
    8. Keyword in Page Title
    9. Keyword in Meta Description
    10. Internal links
    আশাকরি, অন পেজ নিয়ে আমার লেখা আপনাদের ভাল লেগেছে। যদি ভাললাগে তবে শেয়ার করে বা কমেন্ট করে উৎসাহিত করতে ভুলবেন না। 

    নিশ ওয়েবসাইট SEO কিভাবে করবেন? Learn SEO With Lutfor Rahman
    নতুন niche website তৈরি করে SEO করতে চাচ্ছেন? কাজটা কিছুটা কঠিন, but মজার। আসুন দেখে নেই কিভাবে আপনার নতুন নিশ ব্লগ বা niche website টি সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন করবেন। 




    শুরুঃ 

    গত মাসের শুরুতে, আমি এই ইউরোপীয় শিক্ষা পরামর্শদাতার জন্য guest blogging শুরু করি, যে ওয়েবসাইটটি ইউরোপীয় উত্তর সাইপ্রাসের শীর্ষস্থানীয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের ভর্তি এবং আন্তর্জাতিক ছাত্র বৃত্তি অর্জনে সহায়তা করে।

    আগে, তারা  প্রথাগত অফলাইন পদ্ধতিতে ব্যবসা করে যাচ্ছিল, তবে তারা 2015 এর প্রথম দিকে অনলাইনে আসে। 

    কিন্তু তারপরের কিছুই তাদের প্রত্যাশা অনুযায়ী হয় নি, কারণ 6 মাসের অনলাইনে ব্যবসা করার চেষ্টা করে, তারা ইন্টারনেট থেকে তেমন সফলতা পায় নি। সুতরাং তারা এসইও এর মাধ্যমে তাদের ওয়েবসাইটটি অপ্টিমাইজ করার জন্য LinkedIn এ seo expart খুজছিল।

     আমি আমার পোর্টফলিও সাবমিট করি,ঘটনাক্রমে, আমি তাদের সাথে কাজ করার সুযোগ পাই। 

    এই সময়ে, আমি তাদের যোগাযোগ করেছিলাম, ফলে আমাকে ট্র্যাফিকের লিভারেজ জন্য + সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন করার কাজ দেয়া হয়। আমার টীমে মোট ৩ জন নেয়া হয়। 

    সেখানে, নেয়া পদক্ষেপগুল হল...


    5 Best SEO Practices to Optimize a Niche Website...

    আমরা পাঁচটি প্রধান এসইও কৌশলের উপর কাজ করেছি, আমাদের terget অরগানিক ট্রাফিকে কমপক্ষে 1000+/day তে উন্নতি এবং ৭ টি keyword এ রাঙ্ক করা।

     নীচে আমদের নেওয়া কৌশল ব্যাখ্যা করেছি এবং আমরা কেন এটি করেছি।


    1) Comprehensive Keyword Research and Customer Persona:

    • বিগত বছর গুলিতে গুগলের অনেকগুলি algorithm হয়েছে, যাতে তারা কেবলমাত্র সঠিক কী-ওয়ার্ডিংয়ের উপরই নয় বরং কীওয়ার্ড অভিপ্রায়েও ফোকাস করে। সুতরাং, Searcher Intend বুঝে মাঠে নামা উচিত।  


    2) Link Building Campaign:
    Link Building Campaign:

    • লিংক বিল্ডিং ক্যাম্পেইনটি এসইও কৌশল 3 নং ধাপের এর সাথে perform করা উচিত।
    • যেহেতু, লিঙ্ক এর বয়স ও একটি রাঙ্কিং ফ্যাক্টর সেহেতু সেটা মাথায় রাখা উচিত। 
    • Niche রিলেটেড সাইট গুলিতে লিঙ্ক বিল্ডিং এ মনোযোগ দেয়া উচিত। 
    • লিঙ্ক স্বয়ংক্রিয়ভাবে মনিটরিং করতে, https://monitorbacklinks.com/seo-tools/free-backlink-checker আর https://www.linkody.com/  ব্যবহার করতে পারেন। 



    3) Content Development:

    • লিঙ্ক বিল্ডিং এর সাথে সাথে Content তৈরি করা বেশ, ঝামেলার মনে হলেও আমি মনেকরি এটা করা ভাল। কারণটা, আগেই বলেছি।
    • কন্টেন্ট লিখার সময়, গুগলের নতুন ফিচার গুলি, যেমন, rich snippet, quastion and answer section এর কথা মাথার রাখা উচিত। 
    • ভাল কন্টেন্ট না, হলে রাঙ্ক করা খুব ঝামেলার, যদিও দুর্ভাগ্য বশত রাঙ্ক করেন, রাঙ্ক ধরে রাখা সম্ভব হবে না।


    4) Social Media and Forum Traffic:

    • এটা অনেক জরুরি, ভিজিটর না পেলে রাঙ্ক করা, আপাতত বেশ ঝামেলার। 
    • Social Media যেমনঃ facebook, twitter, pinterest, redddit থেকে ভাল ভিজিটর পাওয়া যায়। 
    • Forum Posting থেকে ভাল মানের ট্রাফিক পাওয়া যায়। নিস রিলেটেট ফোরাম গুলিতে নিয়মিত পোস্ট করা বাঞ্ছনীয়। 



    5) Monitor, Analyze and Repeat:

    • শেষ পার্ট হল মনিটর করা, ভিজিটর কেমন বিহেভ করছে আপনার সাইটে এসে। 
    • bounce rate আর রাঙ্কিং কীওয়ার্ড গুলি নিয়ে কাজ করতে হবে এই ধাপে। 
    • মজার কথা হল গুগল সার্চ কনসোল আর  গুগল এনালাইটিক্স  এ জন্য সবচেয়ে ভাল tool. 

    আমাদের সহজ সরল অথচ কার্যকরী SEO ফলাফলঃ 

    আমি আগে বলেছিলাম যে আমাদের লক্ষ্য ছিল organic trafic 120 থেকে 1000+ বৃদ্ধি আর ৭টি keyword এ রাঙ্কিং এনে দেওয়া। 

    হয়তো, আপনি আগে থেকেই অনুমান করেছেন, আমরা সেই লক্ষ্যগুলি অতিক্রম করেছি।

    দুই সপ্তাহের মধ্যে আমরা সামগ্রিকভাবে ওয়েবসাইট সামগ্রীর ট্র্যাফিক বাড়তে থাকে। যার ফলে ২ মাসের মধ্যেই এটি ১০০০+ হয়।

    আর দুই সপ্তাহের পর, সব কয়েকটি কীওয়ার্ডের দ্বিতীয় ও তৃতীয় পৃষ্ঠায় আর,

    সেগুল চতুর্থ সপ্তাহের মধ্যে, গুগলের প্রথম পৃষ্ঠায় পাঁচটি 5, 6, 6, 6, এবং 9  আর ২য় পৃষ্ঠায় ১১ তে ২ টি উঠে আসে। 

    আর পঞ্চম ও ষষ্ঠ সপ্তাহের মধ্যে সবগুলো ১-৫ এর মধ্যে রাঙ্ক করে। ২য় ধাপে আমাদের লিঙ্ক তৈরি করার প্রয়োজন হয় নি। 


    শেষঃ 

    আশাকরি আপনি নতুন কিছু জানতে পারেছেন,অনেক তাড়াতাড়ি লেখার কারণে আর উইন্ডোজ ৮.১এ বাংলা লেখার প্যারা নিয়ে, এতটুকু লিখলাম। 

    বিশেষ ধন্যবাদ, গুগল ট্রান্সলেটরকে। তার সাহায্যে কিছু লেখা eng লিখে বাংলা করা হয়েছে। 
    Best Free Website SEO Audit Tools
    This article will include the tips and tools required for a free and complete SEO audit. I have included the best free SEO audit tools for 2019. Let's learn about Best free SEO audit tools...


    Best Free Website SEO Audit Tools


    The website audit is one of the common skills that every SEO expert should comprehend. This one of the trickiest part.

    Now, let's move to the basics and then I will a free Website SEO Audit tool List...

    What is an SEO Audit? 

    It is the process of finding out a website health on different SEO metrics. 

    This is a Mendetory step before starting a new SEO compain. 

    You should already know about different Google Algorithms, and search engine rank page (SERP) structure. 

    This Algorithm always checks for different things, they have set a standard for a quality web page. 

    On another hand, We know SERP only shows title, link and meta descriptions.

    A complete SEO audit is a process to check different parameters, finding errors and opportunities...  

    What an SEO Audit includes:

    A technical website audit includes...
    • Technical analysis
    • On-Page analysis
    • Off-Page analysis
    • Competitive analysis and keyword research

    Best Free Website SEO Audit Tools

    The best free SEO tools in 2019 are...
    1. SiteMator (Probably the best tool in this list.) 
    2. Woorank (Awesome and Reliable) 
    3. Varvy's SEO Overview Tool (have some different metrics, such as Accessibility, HTML errors)
    4. Screaming Frog SEO Spider (Desktop Application Best use for missing finding image alt tag) 
    5. SiteBulb (Desktop Application Much like Screaming Frog SEO Spider. ) 
    6. DeepCrawl and Moz
    7. HubSpot's Website Grader
    8. Check My Links
    9. UpCity's SEO Report Card
    Googles Tools:

    Why you will perform an SEO audit? 

    This is one of the easiest yet trickest part of SEO. It has a huge impact on acquiring customers and setting up a plan.

    If somebody asks to rank a website, first you have to perform a site checkup. It will not only help you to create a Ranking Strategy but also help you to evaluate your work.

    That means if you do not know how much work is needed for ranking that website... how much you will charge the customer?





    Build Backlink Like a Pro: Advance Link Building Tips and Techniques 2019
    Backlinks are one of the most important things for a better ranking.

    But, getting the backlink from authoritative sites is very hard.

    In this article, you will get the best way to build quality backlinks.

    So, here we are...

    Lets, learn some basics things you have to focus on when building a backlink.



    Backlinks will have a very important role for ranking top in for 2019. Now, to build quality links, remember these things...


    • Relevancy: Create a backlink on relevant sites. Do not just create the backlink on any sites. 
    • Number of Domain: Focus on creating links in different sites rather than building many from a site, do not create many backlinks on the same site. 
    • Quality Over Quantity: Focus on building quality links from the relevant site quantity does not works.
    • Quality helps and other harm: So, this is a common thing we all know, but do not willing to follow. I don't understand, why you have to build more. 
           And, if you achieve it from the spammy site, it will hurt your site ranking. 
    • Sites with Traffic: This will help your backlinks indexed by Google faster. Also, you can get some visitors. 

    There is some common problem that each SEO face. Also, people do not know the rules properly.

    Let's learn about the ugly truth...

    Links got deleted...

    A backlink can be got deleted. If you build it in an auto-approved comment site. Your link may be get deleted by the blog owner.

    On the other hand, they can change the link attribute from "dofollow" to "nofollow".

    Solution:

    Build a link in trusted sites. You do not need many backlinks...

    I ranked a keyword to #1 position with only 9 quality backlinks, where the average backlink was 219.


    Google Do Not Index Your Backlink:

    Suppose you have submitted a sitemap but Google does not index those links?
    In this situation, what should you do? Are there any tips?

    Don't know about link building metrics

    To understand this properly, you should have a better understanding of this...

    There are no-follow and do-follow backlink types. Also, there is a thing called relevancy.

    How to build backlinks like a pro? 

    Earn Links:

    Write good, informative content. If you can create a resourceful article it will generate social share. However, if you are lucky enough, it may generate links too.

    Avoid BAD links:

    Don't build links from low-quality sites, irrelevant sites, or spammy sites. 

    Make a good community:

    Increase your relationship with the same niche bloggers.

    Reverse Engineering:

    Find your competitor backlink profile, and try to build links on the same websites. But do not build bad links.


    Advanced Link Building: 

    Guest Post: The Exeat Method I Follow

    This method is easier then you thought. To become a professional guest link builder there are three easy steps.


    1. Finding Resources: Here, you have to search for websites to publish or allow guest articles.

      Search for: Niche/ Keyword +"Write or us"
                       Niche/ Keyword + "Write for us"
                       Niche/ Keyword + "Contribute a Guest Post"

      If you search online you will find a lot of advanced search queries like this. Besides, you can add "@" / "@gmail.com" in the search query.

      Note: You can find email addresses instead of the sites. However, miss a lot of opportunities.  The region I use this method is fast and saves lots of time. Besides I use seed keywords (No long-tail)

      Search for: Niche/ Keyword + "Write for us" + "@"
                       Niche/ Keyword + "Write for us" + "@gamil.com"
       
    2. Collecting Emails: This process is straight forward. Go and garb emails. For the second method, I use an email extractor
    3.  Outreach: Next, outreach and make a deal! However, I use Ahrefs to analysis the website before publishing. 

    Broken Link Building:


    This process involves various methods. I will describe it later in a post.

    Skyscraper Technique: 


    This is an advance link building techniques. However, in some niches, it will not work as you expected.

    Getting links from existing content is always beneficial. But, It will require lot of time. And a suitable way to create backlinks for Agencies.

    For general blog sites, the Skyscraper Technique is not recommended unless the competitions has strong backlink profile.

    Basic Backlinking: 

    Comment Backlink: 

    Probably the easiest way, yet effective but mostly nofollow and spammy. So, Aim for high-quality do-follow backlinks. 

    Profile Backlink:

    I create these backlinks to increase DA and PA. You can also use it to increase Author Value.

    Forum Backlink:

    The forum backlink building is easy but time-consuming. However, you can get lots of Dofollow links.

    Audio, Video, Doc And Slideshare: 

    You can find a huge list on google for these types of link building. IE: "DOC Sharing Site List + Year".

    Article Submission:


    Article submission sites often hold a High DA/PA Score. They are just like Guest Posts. Furthermore, you have to submit content.

    The process of article submission backlink building is fairly simple.

    • Create an account on article submission sites.
    • Submit a unique article, create a link
    • Submit for review
    However, there are some auto approve article submission sites. 

    Now, 

    Where you will find sites for submitting articles?? 

    Search on google...
                                      ... Search keywords like "Auto Approved Article Submission site List"/ High DA Article Submission Site List. 

    Here is a list of websites, where you can create Do-Follow Backlinks

    • Medium.com  
    • Hubpages.com
    • Becomegorgous.com
    • Patchengine.com
    • Bloglivin.com
    • Traveldudes.com

    Directory Submission:

    On this year 2019, an article on google webmaster blog confirms that link from Low-Quality Directory Submission sites causes Google Penalty for your site.

    So, be extra careful when you are creating these types of backlinks...


    One term that SEO Experts will mention- "Use only Niche/Business Relevant Sites for Link Building Purpose".



    How To Create Blogger XML sitemap And Submit in Webmaster Tools
    Do you want to learn how to create a blogger XML sitemap URL or custom XML sitemap and add or submit on bing an google webmaster tools?

    Here you will learn how to create a custom blogger sitemap URL and how you will submit them in the Bing, Yahoo, and Google.

    How To Create Blogger XML sitemap And Submit in Webmaster Tools

    Blogger is a product that is associated with Google. But I do not understand, why Google does not introduce sitemap submission on blogger dashboard. 

    If you are using blogger, you may feel that it is one of the best free blogging platforms out there.

    Creating a blogger XML sitemap is easy. Actually, it is just adding some text after the site URL.

    How to add sitemap in blogger

    The fun part is that Blogspot platform already created an XML sitemap for you. You do not need to do much.

    But if you want to add an HTML sitemap, then you have to input some codes.

    Remember that Blogger XML sitemap is the sitemap you will submit on webmaster tools.

    HTML are just for humans. 


    Blogger sitemap URL

    The sitemap of your blogger website will be https://yoursite.blogspot.com/atom.xml?redirect=false&start-index=1&max-results=500.

    You just have to add sitemap code for blogger is"atom.xml?redirect=false&start-index=1&max-results=500

    " after your blog link. It only supports 500 links.

    Blogger sitemap example

    Here is an example for an XML sitemap page for blogger. My blog sitemap link is- https://lut4raman.blogspot.com/atom.xml?redirect=false&start-index=1&max-results=500


    How to Submit:

    Submit Bing:
     Login to the bing webmaster account and add your site. Then submit the URL.
    Yahoo is also associate with bing. So you do not need to submit it separately.


    Google Webmaster tools (now known as Google search Consol): 

    Step 1: Log in


    Create Blogger XML sitemap And Submit in Webmaster Tools
    Step 2: Click on the crawl
    Step 3: Click On sitemap and ad link as seen in the picture.
    Create Blogger XML sitemap And Submit in Webmaster Tools
    Hope, now you have understood how to create an XML sitemap and add sitemap in Bing and Google.

    ebmaster
    How to Research Keywords with Free Keyword Research, Competition Checker Tools and Browser Extensions

    Keyword Research Tools


    To find the best keywords there includes many steps. First, you have to generate keywords ideas on your head.
    Keyword Research Tools And EXTENSION

    Here is the step by step process I use.

    Step One:
    This step can be called "brainstorm keyword ideas".
    Tips for better keyword ideas

    • Think about the "product" or "thing" you want to write about.
    • Browse through facebook groups, twitter or other physical community( such as the marketplace, shopping destination, or peoples community) related to the topics you wanted to work on.
    • Ask help from a friend.


    The second step is finding the search volume and competition score. And them most importantly finding the right acronyms or keyword phrases that people search in google.

    • This could be different keyword set. People may call a thing differently then you think. 
    • In this step, you will find and list the top searched keywords, and their competition aka difficulty metrics using tools below.

    Tools And extensions for finding keywords search value and competition metrics.


    The best free website tools and extension for 2018 and in 2019 are,

    Ubersuggest 

    PROS:
    • A free tools for finding search volume, 
    • Search competition or difficulty, 
    • Related search and
    • SERP ranked page states. 
    • Competition matrics show difficulty for both paid and organic search.
    CONS:
    • But there is no option for finding global search volume.
    • Search suggestion is not good enough.

    Keyword Everywhere Extension

    Free and a must have "free extension" for Google Chrome and Mozilla Firefox.

    PROS: 
    • Free,
    • Include google related search
    • Global Search Volume
    CONS:
    • Show the same search volume on keywords singular and popular form.
    • Show kw difficulty for paid search.

    Google AdWords: Keyword Planner

    Long ago this was the best and only used tool for this purpose.

    PROS:
    • Best for generating ideas
    • Related Keyword suggestion is awesome
    CONS:
    • It does not show search volume.
    • The competition metrics are for the paid campaign.
    TIPS: 
    You can use keyword everywhere extension to show search volume. 

    Kwfinder

    This is a paid tool that offers daily 5 searches for a free account. 

    SEMRush

    Compact tool, best visual presentation. Problem is free account only offer 10 searches a day.

    STEP TREE:

    Now, before finalizing a keyword phrase there is one more step I follow. You also need to do the same. 

    In this stage, you need to find that the seasonality of a kw. 

    There is a perfect tool for that is called Google Trends 

    Tips:
    • First, search for a keyword and choose the appropriate category, country or worldwide(global).
    • Check Kw search history for the last 90 days, 12 months and Five years.
    Here are some other tools... 

    Tools and Extension for Generating Keyword IDES 

    Thanks! please leave a comment below for appreciating or suggestion.
    Sticker Painting: Sticker Painting in NYC
    Do you want sticker painting service in NYC? We are offering cheap custom sticker painting service in new work city.

    Sticker Painting: Sticker Painting in NYC

    What is Sticker Painting:

    An excessive amount of work makes us dull and boring. So we need to free ourselves from monotonous work, anxiety, and stress. But just can't sit idly we need to do something creative but not challenging.

    In this regard, sticker painting plays a vital role. Stickers are usually an easy, affordable way to add a touch of professionalism and personality to products, packagings and more. But "Sticker Painting" is way more than that.

    It's a compelling new activity for artists and crafters, coloring book enthusiasts of all ages. Industry Designs is offering fully customized sticker printing at an affordable price.

    Sticker Painting in NYC:

    As in paint-by-number, each template is divided into hundreds of spaces. Each sticker corresponds, particularly by number. Find the sticker, peel it, and place it in the right space.

    Add the next, and the next, and the next then at a point the considered sticker will be done. It really gives amusement to a curious mind. Both the mental pleasure of peeling and sticking gives the great satisfaction of watching a "Painting" come to life.

    On the contrary, seeing a flat black-and-white illustration to a dazzling image with body, spirit, and color utterly makes a moment deeply absorbing.

    Still life with fruit. Sunset on the shore, Electrolysis of a cheetah, A dynamic hummingbird in mid-flight, A classic urban landscape, Two rowboats on a peaceful lake are the coolest examples for the output of sticker painting.

    Benefits Of Sticker Painting

    You have noticed this type of work everywhere in new work city. Though there are other options are available but sticker painting has created a unique demand over time.
    The painted stickers are most popular for its affordability. It's a lot cheaper than paint. Even you don't have to hire a painter to do the task. Anyone can fill their walls with stickers on their own.No one needs previous experiences like they do in painting. Also, it's less messy than painting and time-saving.

    Another special benefit of the sticker is its easy removal. Anyone remove their sticker from the wall anytime.

    It doesn't require removers, bags of rubbish and ugly walls like you can get when removing wallpaper. Simply add a bit of heat to the sticker (like a hairdryer) and remove the stickers.  It won't cause any inconvenience like paint, paste or residue left behind on your walls, unclean marks, bad looking scratches etc.

    Common Usage:

    Nowadays, sticker painting is used in every place and things. Like office, clinics, bars, restaurants, storefront, cars, bags, bedroom, cafes etc. But it is also used in all houseware types of equipment like

    • Glass,
    • Windows and doors,
    • Mirrors,
    • Wardrobes,
    • Stairs,
    • Book Shelves,
    • Toy Chests,
    • Childs bedroom or, nursery.

    How we work?

    Firstly it was an act of the kids but then the adults zeroed on in it. Sticker painting is as like as watching a "Live painting". The book provides you with everything that is required to create  12 vibrant, full-color "paintings"-a dozen illustrated templates printed on perforated card stock, and 24 pages of stickers to fill in and create the artwork.

    Normally,
    The images are rendered in "low-poly," a computer graphics style using geometric polygon shapes to create a 3-D effect.

    Order Now:

    You can order at any moment using your mobile. This whole work is normally a three-step process.

    1. You call us,
    2. We work to make you happy.
    3. You pay.

    Popular Posts

    Contact Me

    Get in touch